ভালো দামের আশায় পেঁয়াজ চাষে ব্যস্ত চাষীরা

ভালো দামের আশায় পেঁয়াজ চাষে ব্যস্ত চাষীরা

পেঁয়াজ চাষের ভরা মৌসুমে বিভিন্ন জেলায় চারা রোপনে ব্যস্ত সময় কাটছে চাষীদের। উৎপাদনকারী বিভিন্ন জেলার বিস্তীর্ণ মাঠজুড়ে সারাদিন কর্মব্যস্ত চাষীরা। দেশে চলমান পেঁয়াজের ঘাটতি পূরণ ও ভাল দামের আশায় অনেকেই বেশি আবাদ করছেন পেঁয়াজের। সব ঠিক থাকলে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি উৎপাদনের আশা কৃষি বিভাগের।

পাবনার বিস্তীর্ণ মাঠজুড়ে চাষীদের এই কর্ম ব্যস্ততাই বলে দেয়, অবসরের ফুরসৎ নেই তাদের। ভরা মৌসুমে মাঠের পর মাঠ পেঁয়াজের আবাদ করছেন তারা। গত বছর যেসব জমিতে অন্য ফসলের আবাদ হয়েছিল এবার সেখানে হচ্ছে পেঁয়াজের আবাদ।

বাজারে ভাল দাম থাকায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি পেঁয়াজ আবাদ হবে জানান কৃষি কর্মকর্তা।

ফরিদপুরের ৯ উপজেলায় গত বছরের চেয়ে এবার ১ হাজার হেক্টর বেড়ে ৩৭ হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ আবাদ হচ্ছে। মুড়িকাটা জাতের ভাল দাম পেয়ে পেঁয়াজ চাষেই ঝুঁকছেন চাষীরা। এতে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার আশা কৃষি বিভাগের।

কুষ্টিয়ায় পেঁয়াজ চাষের লক্ষ্য ১৪ হাজার ৮শ হেক্টর। এরমধ্যেই কুমারখালী, দৌলতপুর, সদর ও খোকসায় আবাদ হয়েছে সাড়ে ১২ হাজার হেক্টর জমিতে। গতবারের চেয়ে ২ হাজার ৮শ’ হেক্টর বেশি জমিতে হচ্ছে আবাদ। এজন্য চাষীদের উদ্বুদ্ধের পাশাপাশি বিভিন্নভাবে সহায়তার কথা জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

দেশে উৎপাদিত মোট পেঁয়াজের ১৩ ভাগ হয় রাজবাড়ীতে। বাম্পার ফলন ও ভাল দামের আশায় এবার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি জমিতে চারা রোপণ হয়েছে।

ভরা মৌসুমে বৈরি আবহাওয়ার কারনে, জমি তৈরির পর চারা রোপনে কিছুটা দেরি হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী দুই থেকে আড়াই মাসের মধ্যেই বাজারে আসবে এসব পেঁয়াজ। এতে গতবারের লোকসান পুষিয়ে নেয়ার আশা চাষীদের।

খবরটি শেয়ার করুন...

Comments are closed.




© All rights reserved © 2018-20 boguratribune.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com