ইতালিতে একদিনে রেকর্ড ৬২৭ জনের মৃত্যু

ইতালিতে একদিনে রেকর্ড ৬২৭ জনের মৃত্যু

ইতালিতে কভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে একদিনে আরো ৬২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা নিয়ে দেশটিতে মোট ৪ হাজার ছাড়িয়েছে মৃতের সংখ্যা। এক মাস আগে ইউরোপের এই দেশটিতে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর প্রতিদিনই মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে। এরই মধ্যে চীনকে ছাড়িয়ে গেছে দেশটির মৃতের সংখ্যা।

দেশটিতে বিগত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে আরো ৬ হাজারের বেশি মানুষ। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৭ হাজার ২১ জনে। আগের দিনের তুলনায় নতুন রোগী বেড়েছে ১৪ দশমিক ৬ শতাংশ।

কভিডের কারণে ইতালির উত্তরাঞ্চীয় লোমবারডির পরিস্থিতি এখনো শোচনীয়। দেশটির এই অঞ্চলে সবচেয়ে বেশি মানুষ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ হাজার ২৬৪ জন, আর মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৫৪৯ জনের।

ইতালিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তদের মধ্যে পাঁচ হাজার ১২৯ জন পুরোপুরি সুস্থ হয়েছেন। আর নিবিড় পরিচর্যায় আছেন দুই হাজার ৬৫৫ জন, যেখানে আগের দিন এই সংখ্যা ছিল দুই হাজার ৪৯৮।

গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের উহানে প্রথমবারের মতো শনাক্ত হয় কভিড-১৯। এ পর্যন্ত সেখানে মারা গেছেন ৩ হাজার ২৪৮ জন, আক্রান্ত হয়েছেন ৮০ হাজার ৯৬৭ জন। সংক্রমণ শুরুর পায় দুই মাস পর গত ২১ ফেব্রুয়ারি ইতালিতে প্রবেশ করে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। এরপর মাত্র একমাসের মধ্যেই মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে দেশটি।

এদিকে, কভিডে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে একদিনেই মারা গেছে ১ হাজার ৩শ বেশি মানুষ।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক নগরীকে মহাদুর্যোগের শহর ঘোষণা করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভাইরাসের কারণে দেশটিতে নতুন করে ৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ হাজার ছাড়িয়েছে।

স্পেনে এক দিনে মারা গেছেন ২৬২ জন। এছাড়াও ফ্রান্সে ৭৮, ইরানে ১৪৯, নেদারল্যান্ডসে ৩০, জার্মানিতে ২৪, যুক্তরাজ্যে ৩৩, বেলজিয়ামে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। বিশ্বে এ রোগে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৩শ ৮৩ জনে। আক্রান্ত ২ লাখ ৭৫ হাজার। ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ৩০ দিনের জন্য সীমান্ত বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কিউবা।

কভিড-১৯ রোগে শুধু বয়স্করা নয় তরুণরাও সমান ঝুকিতে রয়েছে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির মহাপরিচালক টেড্রোস অ্যাডানম গ্যাব্রেসেস তরুণদের সতর্ক করে এই তথ্য দেন।

খবরটি শেয়ার করুন...

Comments are closed.




© All rights reserved © 2018-20 boguratribune.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com