‘রোহিঙ্গা শিবিরের চারপাশে কাঁটাতারের বেড়া দেয়া হবে’

‘রোহিঙ্গা শিবিরের চারপাশে কাঁটাতারের বেড়া দেয়া হবে’

যুক্তরাষ্ট্রসহ তিন দেশের রাষ্ট্রদূতের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন জানিয়েছেন, রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা-নজরদারিতে আনতেই আশ্রয় শিবিরে কাঁটাতারের বেড়া দেয়া হচ্ছে। গঠন হচ্ছে আর্মড পুলিশের বিশেষ ইউনিট। সরকারের এ উদ্যোগে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়সহ দাতাসংস্থারা সায় দিয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

প্রত্যাবাসন দীর্ঘায়িত হওয়ায়, রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে বাড়ছে অপরাধ প্রবণতা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ রাজনৈতিক নেতাদের ওপর হামলা ও হত্যার ঘটনায়ও উদ্বিগ্ন সরকার। পাশাপাশি, শিবির ঘিরে সন্ত্রাসী তৎপরতা ও মাদকপাচার বন্ধে কঠোর হচ্ছে প্রশাসন। তাই ক্যাম্প ঘিরে কাঁটাতারের বেড়া দেয়ার কাজ দ্রুত শুরু করতে চায় সরকার।

তবে হঠাৎ করেই এ সিদ্ধান্ত কেন নেয়া হচ্ছে জানতে, সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে আসেন, মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার, কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনোয়েট প্রেফনটেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ কয়েকটি এনজিওর প্রতিনিধি দল। এসময় মন্ত্রী তাদের জানান, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে দেরি হওয়ায় নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করেই দেয়া হচ্ছে কাঁটাতারের বেড়া।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন বলেন, তবে এতে রোহিঙ্গাদের সহায়তায় কর্মরত এনজিও কর্মীদের কাজে কোনো সমস্যা হবে না বলেও রাষ্ট্রদূতকে আশ্বস্ত করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। জানান, সরকারের ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট রাষ্ট্রদূত ও দাতা সংস্থারা।

তিনি আরো বলেন, মোবাইল ফোন-ইন্টারনেটের ব্যবহার সীমিত করার প্রসঙ্গে রাষ্ট্রদূতদের মন্ত্রী জানান, আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসীরা যেন রোহিঙ্গা শিবিরে তৎপর হতে না পারে সে কারণেই এ ব্যবস্থা। পাশাপাশি জানান, রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত হবে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার সঙ্গে আলোচনা করেই।

খবরটি শেয়ার করুন...

Comments are closed.




© All rights reserved © 2018-20 boguratribune.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com